দৌলতপুরে পদ্মা নদীতে নিখোঁজ দুই কলেজ ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার

দৌলতপুর(কুষ্টিয়া)প্রতিনিধিঃ

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে পদ্মা নদীতে ডুবে ইউসুফ আলী (১৯) ও সামিরুল ইসলাম সম্রাট (১৮) নামে দু’জন কলেজ ছাত্র নিখোঁজ হওয়ার ৬ ঘন্টা পর তাদের মরদেহ উদ্ধার করেছে ডুবুরি দল। আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ১টার দিকে উপজেলার ফিলিপনগর ইউনিয়নের আবেদের ঘাট সংলগ্ন পদ্মা নদীতে পড়ে যাওয়া ফুটবল তুলতে গিয়ে তারা পদ্মায় ডুবে নিখোঁজ হয়। নিখোঁজ হওয়ার ৬ ঘন্টা পর আজ সন্ধ্যা ৭টার দিকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করে খুলনা ডুবুরি দল। নিহতরা ফিলিপনগর মরিচা (পিএম) ডিগ্রি কলেজের দ্বাদশ ও একাদশ শ্রেণীর ছাত্র ছিল এবং ফিলিপনগর কবিরাজপাড়া গ্রামের বাবুল কবিরাজ ও কুমির উদ্দিনের ছেলে।
প্রত্যক্ষদর্শী জানান, ইউসুফ আলী ও সামিরুল ইসলাম সম্রাটসহ বেশ কয়েকজন বন্ধু পদ্মার চরে ফুটবল খেলছিল। এসময় ফুটবল পদ্মা নদীতে পড়লে সামিরুল ও সম্রাট নদীতে নেমে ফুটবল তুলতে গিয়ে তারা পদ্মার প্রবল স্রোতে তলিয়ে যায়। খবর পেয়ে স্থানীয়রা নৌকা নিয়ে তাদের উদ্ধারে চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হয়। পরে ভেড়ামারা ফয়ার সার্ভিস দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে নিখোঁজ ছাত্রদের উদ্ধারে পদ্মা নদীতে অভিযান চালিয়ে সন্ধান না পেলে বিকেলে খুলনা থেকে ডুবুরি দল এসে পদ্মা নদীতে অভিযান চালিয়ে একইস্থান থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করে।
ফিলিপনগর ইউপি চেয়ারম্যান ও নিখোঁজ ছাত্রদের প্রতিবেশী ফজলুল হক কবিরাজ জানান, পদ্মা নদীতে ডুবে ইউসুফ ও সামিরুল নামে দু’জন কলেজ ছাত্র নিখোঁজ হওয়ার ৬ ঘন্টা পর তাদের মরদেহ উদ্ধার করেছে খুলনা ডুবুরি দল। মর্মান্তিক এ ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে বলে তিনি জানান।
দৌলতপুর থানার ওসি নাসির উদ্দিন জানান, পদ্মা নদীতে ডুবে নিখোঁজ হওয়া দুই ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার হয়েছে। নিহতদের সুরতহাল শেষে নিজ নিজ পরিবারে নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে।

  • 8
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    8
    Shares