দেশে উৎপাদিত চিনির দাম কেজিতে ৩ টাকা বাড়লো

নিজস্ব প্রতিবেদক/
রমজান উপলক্ষে কেজি প্রতি ৩ টাকা করে বাড়িয়ে ৬৮ টাকা দরে প্যাকেটজাত চিনি বিক্রি করবে বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্য শিল্প করপোরেশন (বিএসএফআইসি)। একইসঙ্গে মিল এলাকায় খোলা চিনি কেজি প্রতি ৬০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৬৩ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

রবিবার (১১ এপ্রিল) শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন রমজান মাসে নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যপণ্যের মাননিয়ন্ত্রণে বিএসএফআইসির চিনি বিক্রিয় কার্যক্রম সম্পর্কে প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান।

পরে মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, গত ৬ এপ্রিল চিনির দাম প্রতি কেজি তিন টাকা বাড়িয়ে নির্ধারণ করেছে বিএসএফআইসি।

জানা গেছে, দেশে চিনির বার্ষিক চাহিদা ১৮ লাখ টন। এর তিন লাখ টনই লাগে রমজান মাসে। এক শ্রেণির অসাধু ব্যবসায়ী প্রতিবছর রমজানকে সামনে রেখে নানা অজুহাতে চিনির দাম বাড়িয়ে দেন। এমন পরিস্থিতিতে সরকারি চিনির দাম বৃদ্ধিতে বাজারে নেতিবাচক প্রভাব পড়বে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

এদিকে চিনির বাজার এসব অসাধু ব্যবসায়ী নিয়ন্ত্রণমুক্ত রাখতে রোজার চাহিদা বিবেচনায় রেখে প্রতিবছর এক লাখ টন থেকে এক লাখ ২০ হাজার টনের মতো চিনি সরকার মজুদ রাখে। তবে এ বছর মজুদ বেশ কম।

সরকারি ৬টি চিনিকল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। বাকিগুলোর উৎপাদনও সন্তোষজনক নয়। ফলে এবার রমজানকে সামনে রেখে সরকারি পর্যায়ে চিনির মজুদ নেমে এসেছে ৫০ হাজার টনে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •