প্লাজমা থেরাপি ব্যবহার নিয়ে সতর্ক করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

পদ্মাপ্রবাহ ডেস্ক/

কোভিড-১৯ এর চিকিৎসায় প্লাজমা থেরাপি ব্যবহার নিয়ে সতর্ক করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। করোনায় আক্রান্তের পর সুস্থ হয়ে ওঠা ব্যক্তিদের প্লাজমা অন্য আক্রান্তদের চিকিৎসায় ব্যবহারের পদ্ধতিটি গত রবিবার জরুরিভাবে অনুমোদন করে যুক্তরাষ্ট্র।

একদিন পরই ডব্লিউএইচও জানিয়েছে, করোনা ভাইরাসের চিকিৎসায় এই পদ্ধতিটির কার্যকারিতা ‘একেবারেই কম’। প্লাজমা চিকিৎসা এমন এক পদ্ধতি, যেখানে করোনা থেকে সেরে ওঠা ব্যক্তির দেহে অ্যান্টিবডি তৈরি হওয়ার পর তার দেহ থেকে প্লাজমা নিয়ে আক্রান্ত ব্যক্তিকে দেওয়া হয়। এতে করে আক্রান্ত ব্যক্তি দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠতে পারে। বিভিন্ন রোগের চিকিৎসায় দীর্ঘদিন ধরেই পদ্ধতিটি ব্যবহার হয়ে আসছে।

তবে ডব্লিউএইচও’র প্রধান বিজ্ঞানী সৌম্য স্বামীনাথান জানিয়েছেন, কেবল অল্প কয়েকটি ক্লিনিক্যাল পরীক্ষায় প্লাজমা থেরাপিতে ফল পাওয়া গেছে। পরীক্ষামূলক ব্যবহারের বাইরে এর কার্যকারিতা নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহ রয়েছে। তিনি বলেন, কয়েকটি পরীক্ষায় সুফল দেখা গেলেও এসব পরীক্ষা খুবই সীমিত আকারের এবং এর তথ্য এখন পর্যন্ত অসম্পূর্ণ। সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, এই মুহূর্তে প্লাজমা থেরাপির কার্যকারিতার প্রমাণ খুবই কম। সে কারণে আমাদের সুপারিশ হলো প্লাজমা থেরাপি এখনো পরীক্ষামূলক।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •